শুক্রবার, ৩ জুলাই, ২০২০

মানস সরকার


ট্রেনে উঠে গুমোটভাবটা অনেকগুণ বেড়ে গেল। ভীড়, প্যাচপেচে ঘাম। মানুষের বিরক্তি।
বাইরের আকাশের দিকে তাকালাম। গ্রীষ্ম শেষ। বর্ষার দেখা নেই।
একটা খোঁড়া বাচ্চা মেয়ে দুটো স্টেশন পর ট্রেনে উঠল। একাই।
গান শুরু করল।
আমার পাশের ভদ্রলোক খুব ঘামছিলেন। পাশের ভদ্রলোককে বললেন,  - এ বছর বোধহয় আর বর্ষা আসবে না।
শুনে ঘাড় নাড়লেন অন্যজন, - অমানুষ হয়ে যাচ্ছি মশাই। প্রকৃতি শোধ নিচ্ছে।

দর দর করে ঘামছে খোঁড়া মেয়েটি। গান গেয়ে যাচ্ছে একমনে। উদাস হয়ে যাচ্ছে মনটা।
ট্রেনের ভেতর চলতে থাকা কথার গুঞ্জন কমে আসছে। শুকিয়ে এল আমার ঘামও।
গেয়ে যাচ্ছে মেয়েটা। তাকিয়ে দেখলাম,  কমে এসেছে আমার আশেপাশের মানুষের ঘামও।
গান ছড়িয়ে পড়ছে গোটা কামরায়।
হাওড়া নামার আগের মুহূর্তে নিজের চোখে হাত দিয়ে দেখলাম ভিজে গেছে চোখ।
গান চলছিলই।
ট্রেনের বাকি যাত্রীদের চোখেও তখন বর্ষা নেমেছে....
      

1 টি মন্তব্য: