শুক্রবার, ৩ জুলাই, ২০২০

সুবোধ দে। পারক গল্পপত্র


মুকুন্দ মাটির দাওয়ায় বসে আছে। কেমন ঝিমঝিম ভাব। এই হেমন্তে ঝিমুনি বেড়ে যায়।কেউ  কিছু বললে, ঘোলাটে চোখে চেয়ে দেখা ছাড়া মুখে কিছু বলে না। বাড়ির লোক ছাড়া গুটিকয়েক লোক জানে, এ-সময় এমন হয়।

বাতাস যখন একটু একটু করে শীতের পরশ নিয়ে অন্য হাওয়ার গায়ে মেশে।মুকুন্দর ত্বক থেকে খোলসের মত উঠে আসে চামড়ার  উপরের স্তর।সমস্ত শরীর থেকে খোলস খসে পড়ার সময়, একে একে নাওয়া খাওয়া ভোলে সে।

তারপর শরীর জুড়ে নেমে আসে শীতঘুম।

1 টি মন্তব্য: