বুধবার, ২২ এপ্রিল, ২০২০

করোনা ভাইরাস : ডঃ শেখর বন্দ্যোপাধ্যায় (উত্তরবঙ্গ মেডিক্যাল কলেজ)

করোনা ভাইরাস ও পরিবর্তিত সামাজিক প্রেক্ষাপট


করোনা ভাইরাস পরিবারের প্রথম ভাইরাসের সংক্রমণ হয় 2002 সালে। সার্স (Severe acute respiratory syndrome ) ভাইরাস। পরে মার্স (MIDDLE EAST RESPIRATOY SYNDROME) ভাইরাস। জিনগত পরিবর্তন ঘটিয়ে এই ভাইরাস ফিরে এসেছে কোভিড 19 নামে আরো বেশি সংক্রামক হয়ে।

এই ভাইরাস গঠনগতভাবে ফ্যাট এর ওপর নির্ভরশীল, তাই সাবান এর শত্রু। বারবার সাবান দিয়ে হাত ধুলে করোনা সংক্রমণ ঠেকানো যাবে।

করোনা সংক্রমণজনিত লক্ষণ : সর্দি, মাথাব্যথা, গলাব্যাথা, জ্বর, কাশি, গন্ধ পাওয়া কমে যাওয়া ইত্যাদি।

ঝুঁকি বেশি : ডাযাবেটিস, হাইপারটেনশন. হাঁপানি, ষাটোর্ধ বৃদ্ধ /বৃদ্ধা।

করোনা ভাইরাস সক্রিয় থাকে:
দরজার হাতল- ৫ দিন
কাঠের আসবাব- ৪ দিন
লিফ্টের বোতাম - ৩ দিন
প্লাস্টিক /স্টীলের জিনিস - ৩ দিন
কার্ডবোর্ড - ১ দিন
কাচের জিনিস - ৫ দিন
কাগজ - ৫ দিন

সাবধানতা :
1) বারবার হাত সাবান দিয়ে ধোবেন।
2) স্যানিটাইজার দিয়ে হাত পরিষ্কার  করবেন।
3) মোবাইল নিয়ে বাইরে
যাবেন না।
4) হাতে আঙটি পরবেন না।
5)বাইরে থেকে যা কিছু কিনে আনবেন  সাবান জলে ধোবেন, না সম্ভব হলে স্যানিটাইজার দিয়ে মুছে রোদে রাখুন দুদিন।
6)বাইরে বের হলে মাস্ক অবশ্যই পরবেন।
7) শারীরিক দূরত্ব ২ মিটার রাখুন।
8) বাইরে বের হলে কোনো রেলিঙ-এ, বাসে, ট্রেনে হাতলে হাত রাখবেন না, হাত পড়লে স্যনিটাইজার দিয়ে তখনই হাত পরিষ্কার করুন।

এখনো করোনা ভাইরাসের কোনো ওষুধ বা প্রতিষেধক বের হয়নি, তাই উপরোক্ত সাবধানতাগুলি মেনে চলুন। ঘরে থাকুন, সুস্থ থাকুন।

আমরা আশাবাদী, একদিন নতুন সূর্য উঠবেই, ওষুধ বা প্রতিষেধক আবিষ্কৃত হলেই আবার আমরা ভালোবাসার পৃথিবীটাকে ফিরে পাবো।



৪টি মন্তব্য:

  1. Thank you for your suggestions. Thank you all Doctor's for your great work to save us.

    উত্তরমুছুন
  2. প্রয়োজনীয় সব তথ্যগুলো এবং পালনীয় নিয়মগুলো একসাথে পেলাম এখানে । ধন্যবাদ তার জন্য । ��

    উত্তরমুছুন
  3. Thank you Sir for your information.lknew from some source that this covid19 is made in China.Some evidences are there.But you told this virus came through genetic changes automatically.Is it so?

    উত্তরমুছুন
  4. আমার দেখা সেরা একজন চিকিৎসক। ধন্যবাদ স্যার।

    উত্তরমুছুন