সোমবার, ১৩ এপ্রিল, ২০২০

তন্বী হালদারের অণুগল্প : পরিচয়নামা



---- দিল্লী তে ঠিক কী চলছে?
---- আমি তো জানি না।
---- গুজরাতে কী হয়েছিল?
---- আমি তো জানি না।
---- আগামী দিন কি আমাদের রাজ্যটা অসমের চেহারা নিতে পারে?
----- আমি তো জানি না। কোথাকার কোন মুসলিমদের তাড়ানো হবে আর দু চারটে অধঃস্তন পুলিস মরবে তাতে আমার কি বাপু। আমার তো বৈধ কাগজ আছে।
----- কিন্তু এতদিন এ দেশটাকে নিজের বলে জেনে, বসবাস করে মানুষগুলো এখন যাবে কোথায়?
----- জাহান্নামে যাক। এসব আমি জেনে কি করবো? আমি তো নিরাপদ।
----- কিন্তু এতদিনকার জেনে থাকা পরিচয় কেড়ে নিলে মানুষগুলো আইডেন্টিটি ক্রাইসিস এ ভুগবে। তখন কী  হবে?

------ আজ আমাদের একটা ফ্যামিলি গেটটুগেদার আছে। যেতে হবে।
----- ফ্যামিলি বলতে?
----- আমার মা- বাবা, শ্বশুর-শাশুড়ি আর ও দু একজন।
------ আচ্ছা আপনি যদি এখন জানতে পারেন আপনার জন্মের কোনো বৈধ পরিচয় নেই। যাদের বাবা-মা বলে জানেন তারা আপনার রক্তের সম্পর্ক-র কেউ না। তখন কী হবে?
----- রাবিশ! কী বলছেন আপনি?
----- না মানে আমি বলছি এমনটা হলে কী  করবেন?
----- এমনটা কোনোদিন হবে না। কারণ আমি আমার বাবা মায়ের জীবন। সুতরাং স্টপ ইয়োর ইডিয়োটিক টক।
----- থামলেই কি সত্যি মিথ্যা হয়ে যায়?  এই দেখুন আপনার পরিচয়ের বৈধ কাগজ।
 ----- কী এটা?
----- দেখুন। আপনি তো মাস্টার ডিগ্রী করেছেন। নিজেই পড়ুন।
----- এটা তো একটা অনাথ আশ্রমের কাগজ।
-----হুম। গ্রহীতাদের নামগুলো পড়ুন।
----- এ তো আমার বাবা মায়ের নাম।
----- আপনি তো একাই?
---- অফকোর্স!
----- তাহলে কি বুঝছেন? খুব ডিপ্রেশন হচ্ছে? মরেছে আপনার শরীরে মুসলিম রক্ত নেই তো!!




কোন মন্তব্য নেই:

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন