শনিবার, ৪ জানুয়ারী, ২০২০

সোমা ভট্টাচার্যের অণুগল্প : মাতৃত্ব

সোমা ভট্টাচার্য
মাতৃত্ব


রাস্তার পাশে ব্যথায় ছটপট করা এক  মানসিক ভারসাম্যহীন মহিলাকে তুলে নিয়ে এসে হাসপাতালে ভর্তি করে দিল  পুলিশ। নাম-পরিচয়হীন সেই মহিলা হাড়ভাঙা যন্ত্রনা উপেক্ষা করে অবশেষে ফুটফুটে এক ছেলের জন্ম দিল ।

গর্ভাবস্তা একজন নারী-র সবচেয়ে সুখের সময়। কিন্তু সেই সময় এই 'মা', না পেয়েছে কারোর ভালোবাসা , না পেয়েছে কোনো যত্ন , আদর ------- শুধু পেয়েছে কোনো এক বা একাধিক অজানা-অচেনা পুরুষের 'পুরুষত্বের' ছোঁয়া!

তবুও আজ্ সে 'মা'।

জন্ম দেওয়ার পরই ওই রক্তমাখা নবজাতকে এতটাই জাপটে জড়িয়ে ছিলো সে, কেউ ছাড়াতে পারেনি । ঠিক সেইসময় ভিড়ের ভেতর থেকে একজন প্রশ্ন করলো,' কি-রে তুই তো নিজেই পাগলি , বাচ্চাটা মানুষ করতে পারবি তো ?
------ কী! মা কি ক্ষেপি হয় নাকি?' বলেই আবার হাসতে শুরু করলো সে।

এটাই মাতৃত্ত্ব। এখানেই পৃথিবীর সব শক্তি হার মানায়। কেননা মা তো 'মা'-ই হয়।

'পুরুষত্ব' দেখানো লোকটির পৃতৃত্ব বহনের কোনো ক্ষমতাই নেই, কিন্তু এই 'পাগলি' মা দেখালো মাতৃত্ব কী জিনিস!

কোন মন্তব্য নেই:

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন